Home / Health / পোস্তর দাম আকাশছোঁয়া, রান্নায় পোস্তর বদলে স্বাদ ও গুণমান একই রাখার জন্য ব্যবহার করুন এই তিন উপকরণ

পোস্তর দাম আকাশছোঁয়া, রান্নায় পোস্তর বদলে স্বাদ ও গুণমান একই রাখার জন্য ব্যবহার করুন এই তিন উপকরণ

বাঙালি পোস্ত ছাড়া একেবারেই অচল। কি ঘটি বা কি বাঙাল। গরম ভাতে প্রথম পাতে পোস্ত, কাঁচা পেঁয়াজ, কাঁচা লঙ্কা, সর্ষের তেল দিয়ে খাওয়ার মজা একমাত্র বাঙালিরাই জানে। এছাড়া আলু পোস্ত, বিউলির ডাল ঘটিদের একেবারে হট ফেভারিট খাওয়া।

বাঙালরা কোন অংশে কম যায়না, আলুর খোসা ভাজা উপরে একটু পোস্ত ছড়িয়ে খেতে কারুরই মন্দ লাগেনা। এছাড়াও আলু পোস্ত, পোস্ত চিকেন, পোস্ত বাটা, পোস্তর বড়া, ডিম পোস্ত, ঝিঙে পোস্ত, পোস্ত মাছ পোস্ত দিয়ে হয়েছে হরেক রকমের রেসিপি।

তবে বর্তমানে পোস্তর যা দাম তা দেখে বাঙ্গালীদের অন্তত ভীষণ মনে কষ্ট হয়েছে। আগেকার দিনে একটু পোস্ত আর ডাল, ভাত ছিল গরীব ঘরের খাওয়া। সাধারণ মধ্যবিত্ত ঘরে প্রতিদিন এটুকু হলেই মানুষের পেট ভরে যেত, মন ভরে যেত।

কিন্তু বর্তমানে পোস্তর যা দাম হয়েছে, সেখানে পোস্তর কথা ভাবাও একটা কেমন স্বপ্নের মতন মনে হয়। তবে এই নিয়ে মন খারাপ করে লাভ নেই। পোস্তর বদলে তিনটি অসাধারণ খাবারকে আপনি পোস্তর জায়গায় ব্যবহার করতে পারেন। একেবারে পোস্তর মতন খেতে না হলেও খুব একটা খারাপ লাগবে না।

প্রথমত, চিনা বাদাম বাটা -»
চিনা বাদামের মধ্যে রয়েছে প্রচুর গুনাগুন। বাড়ন্ত বাচ্চাদের চিনাবাদাম খাওয়ানো ভীষণ ভালো। চিনা বাদামের মধ্যে যে ন্যাচারাল অয়েল থাকে, তার শরীরের ক্ষেত্রে ভীষণ উপকারী একটি উপাদান। যে কোন রান্নায় পোস্তর বদলে অবশ্যই চিনাবাদাম বাটা দিতে পারেন।

দ্বিতীয়তঃ, সাদা তিল বাটা -»
সাদা তিল খাওয়ার শরীরের জন্য ভীষণ ভালো। বিশেষত যারা ডায়াবেটিসে ভুগছেন অথবা যে সমস্ত মেয়েদের পিরিয়ড সংক্রান্ত নানান রকম সমস্যা আছে, ওভারিয়ান সমস্যা আছে তারা অবশ্যই খেতে পারেন পোস্ত বাটা, আদা বাটা অবশ্যই একটা অসাধারণ বিকল্প। পোস্তর বদলে অবশ্যই খেতে পারেন সাদা তিল বাটা। খেতে খারাপ লাগে না। তবে হ্যাঁ পোস্তর মতন স্বাদ হবেনা। তবে পোস্তর বিকল্প হিসেবে সাদা তিলের জুড়ি মেলা ভার।

তৃতীয়তঃ, চারমগজ বাটা -»
সাধারণত তরমুজের বীজকে চারমগজ বলা হয়। এই চারমগজ খুব সহজে দোকানে কিনতে পাওয়া যায়। চারমগজ খাওয়া শরীরের জন্য ভীষণ ভালো। পোস্তর বদলে অনায়াসে চারমগজ বাটা দিয়ে রান্না করতে পারেন।

তাহলে আর দেরি নয়, এবার পোস্তর বিকল্প হিসাবে এই তিনটি উপাদানের মধ্যে যেকোনো একটি উপাদান ব্যবহার করে দেখতে পারেন। তবে আগে থেকেই বলে রাখছি,পোস্তর মত হয়তো অতটা সুন্দর খেতে লাগবে না। কিন্তু পোস্তর তুলনায় কোন অংশে কম হবেনা। ঠিক যেভাবে পোস্তর অন্যান্য রান্না করে থাকেন এই জিনিসগুলো দিয়ে একবার ট্রাই করে দেখুন। বাড়িতে অতিথি এলে বুঝতেই পারবেন না যে আপনি পোস্ত না দিয়েই রান্না করেছেন।

Check Also

দ্রুত ওজন কমাতে, ডিমের জাদুকরী ৭ দিনের ডায়েট

খাবারে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দিশেহারা অবস্থা। আবার সঠিকভাবে শরীরচর্চা না করায় ওজন বেশি বেড়ে যায়। অনেক …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *