Breaking News
Home / Health / রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে এই ৭টি অভ্যাস মেনে চলুন

রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে এই ৭টি অভ্যাস মেনে চলুন

করোনাকালে আমরা সবাই নিজেকে সুস্থ রাখার চেষ্টা করছি। আর সুস্থ রাখার জন্য রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ানো জরুরি। রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়ানোর জন্য আমরা অনেকেই অনেক পন্থা অবলম্বন করে থাকি। কিছু ভালো অভ্যাস আমাদের শরীর সুস্থ রাখতে পারে সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াতে পারে।

পর্যাপ্ত ঘুম:

কম ঘুমানো বা না ঘুমানোর ফলে শরীরে অনেক বেশি সমস্যা হতে পারে। চিকিৎসকরা বলছেন, সুস্থ থাকতে দিনে ৭ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুমানো উচিত। ঘুমানের একটি নির্দিষ্ট সময় ঠিক করা উচিত। প্রতিদিন ঠিক সময়ে ঘুমানো এবং ঠিক সময়ে ঘুম থেকে উঠলে শরীর সুস্থ থাকবে।

শরীরচর্চা:

প্রতিদিন অল্প কিছু সময় হলেও ওয়ার্ক আউট করার চেষ্টা করুন। এতে আপনাকে যে জিমে যেতে হবে এমন না, বাড়িতে বসেই ব্যায়াম করতে পারেন। এতে করে আপনার স্বাস্থ্যেরও উপকার হবে সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়বে।

রোগ প্রতিরোধ বাড়ায় এমন খাবার খাওয়া:

প্রথমেই জাঙ্ক ফুড আপনার খাদ্য তালিকা থেকে বাদ দিয়ে দেন। ইমিউনিটি বুস্টিং খাবারগুলো আপনার তালিকায় রাখেন, যা শরীরে শক্তি প্রদান করবে সেই সঙ্গে রোগ প্রতিরোধক্ষমতা বাড়াবে।

পানি বেশি করে খান:

একজন ব্যক্তির প্রতিদিন ২ থেকে ৩ লিটার পানি পান করা উচিত। পানি শরীর থেকে টক্সিন বের করে দেয়। পানি শরীরে তরলের ভারসাম্য বজায় রাখার পাশাপাশি শরীর সুস্থ রাখে। পানির পাশাপাশি খাদ্য তালিকায় তরমুজ,কমলালেবু,স্ট্রবেরি অন্তর্ভুক্ত করুন।

প্রাণখুলে হাসা:

আমাদের সবার জীবনে কমবেশি দুঃশ্চিন্তা আছে। তবে এর মাঝেই আপনাকে সুখি থাকতে হবে। কোন বিষয় নিয়ে খুব বেশি সিরিয়াস হবেন না। মানসিক ভাবে ভালো থাকার চেষ্টা করুন।

ধূমপান ও মদ্যপান থেকে দূরে থাকুন:

ধূমপান ও মদ্যপান আমাদের শরীরের রোগ প্রতিরোধক্ষমতা নষ্ট করে দেয়। সেই সঙ্গে সংক্রমণের আশঙ্কাকে বাড়িয়ে তোলে। এজন্য ধূমপান ও মদ্যপান থেকে দূরে থাকুন।

বাড়িতে পোষ্য রাখুন:

বাড়িতে পোষ্য রাখলে তা যেমন আপনার সঙ্গী হবে তেমনি আপনার মন ভালো রাখতেও সাহায্য করবে।

Check Also

মুখের গন্ধ দূর করার সাথে ১০ অসুখ ভালো হবে পান খেলে

পান পাতায় উপস্থিত একাধিক উপাদান নানাবিধ রোগের প্রকোপ হ্রাসে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কিন্তু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *