Breaking News
Home / Health / কোমর ব্য’থায় যা করবেন, যা করবেন না বিশেষ করে মেয়েরা খেয়াল করবেন!

কোমর ব্য’থায় যা করবেন, যা করবেন না বিশেষ করে মেয়েরা খেয়াল করবেন!

সাধারণত সারা ক্ষণই বসে থাকতে হয় এমন কাজ যারা করেন তাদের ক্ষেত্রে পাশাপাশি চল্লিশ পেরিয়ে যাওয়া নারীদের ক্ষেত্রেও কোমর ব্যাথার স’মস্যাটা একটু বেশী দেখা যায়।

কোমর ব্য’থায় যারা ভো’গেন তাদের সুবিধার জন্য আজকে এমন কিছু সাধারণ নীতিমালার কথা আম’রা বলবো যেগুলোর কিছু তাদের সচরাচর এড়িয়ে যাওয়া উচিৎ আবার কিছু সুন্দর করে মেনে পা’লন করা উচিৎ।

কোমর ব্যাথায় যা এড়িয়ে যাওয়া উচিৎঃ

১.কখনো লম্বা সময় একটানা বসে কিংবা দাঁড়িয়ে কিছু করবেন না।যথাসম্ভব এক ঘন্টা পরপর বসে থাকার অথবা দাঁড়িয়ে থাকার অব’স্থানটা খানিক পরিবর্তন করে নিবেন।

২.ফ্লোরে বা মেঝেতে উঁচু টুল বা চেয়ার ছাড়া কখনো বসবেন না, ফ্লোরে বা মেঝেতে বসলে সরাসরি পেলভিক গা’র্ডল নামক কোমরের হাড়ের সাথে ফ্লোরের শক্ত আঘা’ত লাগে যার কারনে কোমরের ব্যাথা আরো বেড়ে যায়।

৩.নরম ম্যাট্রেস অথবা ফোমের বি’ছানায় ঘুমাবেন না এবং শোবার সময় এক কাত হয়ে অথবা উপুড় হয়ে না শুয়ে চীৎ হয়ে শোবেন।

৪.কথায় কথায় ব্য’থা’নাশক ওষুধ খাবেন না নিজে নিজে।দরকার হলে ডাক্তারের পরাম’র্শ অনুযায়ী ব্য’থা’নাশক এবং অন্যান্য ওষুধপাতি খাবেন।

৫.অতিরি’ক্ত কোমর ব্য’থায় অনেকেই ব্যয়াম করা ছে’ড়ে দেন একেবারে।এতে বরংচ অবস্থা আরো ক্রিটিকাল হয়,তাই কোমর ব্য’থায় ব্যায়াম ব’ন্ধ না করে ডাক্তারের অথবা ফিজিওথেরাপিস্টের পরাম’র্শ অনুযায়ী অবশ্যই ব্যয়াম চালিয়ে যাবেন।

৬.ভারী কাজ অথবা ভারী জিনিস বহন করলে কোমর ব্য’থা প্রচন্ডরকম বেড়ে যায় তাই যাদের কোমরের ব্য’থা আছে তারা কোন ভারী কাজ করবেন না এবং ভারী জিনিস বহন ও করবেন না।

৭.হুট করে উঠা থেকে বসে পরবেন না আবার হুট করে বসা থেকে উঠে পরবেন না। কোমর বাকা করে বা অল্প উপুড় হয়েও কোন কাজ করবেন না।

কোমর ব্য’থার রো’গীরা যা করবেনঃ

১.প্রতিদিন একটি করে ডিম খাবেন যদি আপনার হাই প্রেসারের স’মস্যা না থাকে।

২.ব্য’থার জায়গায় হালকা গরম ছ্যাকা দিবেন সকাল এবং বিকেলে।

৩.অল্প করে হলেও প্রতিদিন নিয়ম করে হাটার অভ্যাস রাখবেন।

৪.প্রচুর পরিমানে পানি এবং শাকসবজী খাবেন।পাশাপাশি অবশ্যই শ’রীরের ওজন ক’ন্ট্রোলে রাখবেন।

৫.বিশ্রাম নিবেন বেশী বেশী।

৬.রাতে ঘুমানোর সময় শক্ত বি’ছানায় শোবেন আর মাথার নীচে পাতলা বালিশ দিবেন।

৭.ডাক্তারের সাথে কনসাল্ট করে দরকার হলে ক্যলসিয়াম সাপ্লিমেন্ট খাবেন।

৮.প্রতিদিন এক গ্লাস দুধ খাবেন।মনে রাখবেন দুধ খেতে হবে ক্যলসিয়াম সেবনের দু’ঘন্টা আগে অথবা পরে।

৯.কখনো এক বিরতিহীনভাবে লম্বা সময় নিয়ে বাস জার্নি,বা রিক্সা জার্নি করবেন না।পারতপক্ষে খা’রাপ বা ভা’ঙাচো’রা রাস্তায় জার্নি এভোয়েড করবেন।

১০.দু’শ্চিন্তা হাহুতাশ ইত্যাদি কম করবেন।রাতে পর্যাপ্ত ঘুম যাবেন।

১১.নিয়মিত ব্যায়াম করবেন ডাক্তারের পরাম’র্শ অনুযায়ী।

পরিশেষে সময় থাকতেই আরো স’চেতন হোন।পরিমিত খাদ্যভ্যাস এবং একটুখানি ব্যায়াম এর অভ্যাস করে তুলুন আশা করি কোমর ব্যাথার য’ন্ত্রণা থেকে আপনি কিছুটা হলেও মু’ক্ত থাকতে পারবেন।

Check Also

মুখের গন্ধ দূর করার সাথে ১০ অসুখ ভালো হবে পান খেলে

পান পাতায় উপস্থিত একাধিক উপাদান নানাবিধ রোগের প্রকোপ হ্রাসে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। কিন্তু …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *