Home / Health / বেশির ভাগ হার্ট অ্যাটাক মধ্য রাতে কিংবা ভোরেই কেন হয়? জেনে নিন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

বেশির ভাগ হার্ট অ্যাটাক মধ্য রাতে কিংবা ভোরেই কেন হয়? জেনে নিন বিশেষজ্ঞের পরামর্শ

হার্ট অ্যাটাক, এখন আর বয়স বেধে হয় না। নীরবেই রোগটি আঘাত করে মানুষের দেহে। মধ্য বয়সী কিংবা বয়স্করা হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকিতে থাকেন বেশি। তবে প্রায়ই শোনা যায়, সকালে কিংবা মধ্য রাতে ঘুম থেকে উঠেই হার্ট অ্যাটকেরে শিকার হচ্ছেন। পরিস্থিতি অনুকূলে না থাকলে প্রাণও যাচ্ছে সঙ্গে সঙ্গেই। অনেক সময় ভোরের দিকে ঘুম থেকে উঠে খাট দিয়ে নামতেই মাটিতে পা রাখতেই ঘটছে বিপদ।

কীভাবে হঠাৎ করে এই সময়টাতেই ঘটছে অঘটন- এর কারণ জানা নেই অনেকের। ডাক্তাররা বলছেন, নির্দিষ্ট সময়ে হার্ট অ্যাটাকে মানুষ মারা যায় এর কারণ, রাতে ঘুমের সময়টাতে সম্পূ্র্ণ অন্যভাবে ব্যস্ত থাকে আমাদের শরীর। হঠাৎ করে ঘুম ভেঙে চটজলদি উঠে দাঁড়িয়ে পড়লে আমাদের মস্তিষ্কে রক্ত প্রবাহ কমে যায়।

এতেই ঘটে বিপদ। এই সময়ই অক্সিজেনের ব্যাঘাত হয়ে মানুষের মৃত্যু হয়।হঠাৎ এমন মৃত্যুকে কীভাবে রুখতে হবে এ বিষয়ে পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাদের পরামর্শ অনুযায়ী যা করতে হবে_

১. ঘুম থেকে ওঠার পর দেড় মিনিট বিছানায় শুয়ে থাকুন।

২. এরপর ৩০ সেকেন্ড বিছানায় বসে থাকুন।

৩. এরপর আরও ৩০ সেকেন্ড খাটে বসে মাটিতে পা দিয়ে বসুন।

৪. এরপর টয়লেটে যাবেন খুব সাবধানে। ঘুম চোখে সমস্যা হলে ঘুম কাটিয়ে উঠার কিছুটা সময় নিন।

৫. এই নিয়ম নেমে চললে শরীরে রক্ত প্রবাহ স্বাভাবিক হবে। হার্ট অ্যাটাক হওয়ার প্রবণতাও কমে যাবে। এই নিয়ম নেমে চলতে ছোট-বড় সবাইকেই পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

Check Also

চোখকে সুস্থ রাখতে নিয়মিত করুন এই ৩টি ব্যায়াম

আমরা বাহু, পা, পেট এমনকি পিঠের ব্যায়াম করি। কিন্তু আমরা কি কখনো ভেবেছি চোখের ব্যায়ামের …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *